এসব কথার কোনো অর্থ নেই, তবু আমরা গুপ্তধন
চাইলাম। নীল জামের অন্তর্শাঁস চুইয়ে যেতে
চাইলাম গোলাপি মায়ার দেশে।
মানুষের এতো মোহ!

আমাদের বাড়ির পাশ দিয়ে ট্রেনলাইন গেল,
গুপ্ত কলাবতীর কয়লাপাহাড়ের পাশ দিয়ে কাশফুলের
দিগন্ত দেখা গেল। তবু আমাদের দুঃখ গেল না।
লাল-হলুদ মরিচের মতো লক্ষ বৃষ্টিদানায় ভরে গেল
উঠোন, ক্ষেত, প্রান্তর।

সেই থইথই প্রান্তরে একদিন এক অলৌকিক পদ্ম
ফুটবে বলে আমরা আশায় আশায় রইলাম।
লাল মোরগের মতো গলা ফুলিয়ে আমাদের প্রতিবেশীরা
সেই থইথই প্রান্তরের দিকে আড়ে আড়ে চাইতো।
অন্ধসাপের মতো কোনো এক পদ্মকুঁড়ি একদিন হঠাৎ
সেই জলরাশি ফুঁড়ে উদয় হবে, উদয় হবে বলে।

 

Error: View 74d81ebx38 may not exist

Loading

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *