[একেকদিন তাতারদস্যুদের কথা শুনতে শুনতে আমি বিহ্বল
হয়ে যাই। তারা গরিব আকন্দফুলের শাড়ি খুলতো না, চন্দ্রমল্লিকা
মাড়িয়ে যেত না…তবু তারা দস্যু ছিলো!]

আমাদের ভৃত্যটির গায়ে উত্তপ্ত কড়াই থেকে তেলের ছিটে
এসে লাগে। পার্শ্ববর্তী নার্সারি থেকে শেকড়সহ অনেক ফুলের
গাছ চুরি হয়ে যায়, নিয়মিত।

বিকেলের হীরে-হীরে রোদে সেদিন লাল-শাদা দু’টি হাঁস
চরছে নদীতে, চোরেদের জড়ো করা হলো।
শিশু থেকে শুরু করে অনেক প্রেমযুগল, নীল একটি
সালোয়ার-কামিজ, এসে বসলো।

খাকি-পরা মোটাসোটা অফিসার আর ভ্যাবলাকান্ত কনস্টেবল।
অফিসার খুব তৎপর হয়ে উঠলেন। কিন্তু তার সামনেই কক্ষের
ভেতর বিদ্রূপস্রোত ভেসে যেতে লাগলো।

 

Error: View 74d81ebx38 may not exist

Loading

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *