আমি শুনতাম ভরা নদীর ওপর দিয়ে-আসা-ভাটিয়ালি,
খোলা মাঠের ওপর দিয়ে ভেসে-আসা বাঁশি,
শুনতাম আবেগময় গীতিকবিতার মতো মাঝরাতের বৃষ্টিপাত
আজ শুনি টিভির ভাঙা গলা, খড়খড়ে শব্দ;

আমি শুনতাম শস্যক্ষেতের গন্ধমাখা পাখির শব্দ,
ফুল ফোটার গুনগুন
শুনতাম গাছের পাতায় বাতাসের একতারা,
বর্ষার বিলে মাছের উল্লাস
আজ শুনি ইট ভাঙা আর লোহা পেটানো;

আমি শুনতাম ভোরবেলা ভেজা দাঁড়ের একটানা ঝুপঝুপ,
উঠানে টুপটাপ শিউলি পড়া,
শুনতাম গাভীর হাম্বারব, শ্রাবণের নদীর মতো ভরা হাটের গমগম
আজ শুনি অবিরাম হর্ন, ছাদঢালাই;

আমি শুনতাম দুপুরবেলা বুক ভেজানো ঘুঘুর ডাক,
ঘুমের মধ্যে শিশিরের এক,দুই…
শুনতাম খালে গড়িয়ে পড়া বানের জলের কলকল
আজ সেই পাতা ও পাখির আলাপ শুনি না, শুনি দিনরাত লেদমেশিন।

Error: View f178851npz may not exist

আপনি যদি কবিতার আকাশে লিখতে চান তাহলে রেজিস্ট্রেশন করুন

Loading

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *