দুলি দুহি পীঢ়া ধরণ ন জাই ।
রুখের তেন্তলি কুম্ভীরে খাই ॥
আঙ্গণ ঘরপণ সুন ভো বিআতী।
কানেট চোরে নিল অধরাতী ॥
সসুরা নিদ গেল বহুড়ী জাগইা ।
কানেট চোরে নিল কা গই মাগই ॥
দিবসহি বহুড়ী কাউহি ডর ভাই ।
রাতি ভইলে কামরু জাই ॥
অইসনী চর্য্যা কুক্কুরীপা এঁ গাইল ।
কোড়ি মাঝেঁ একু হিঅহি সমাইল ॥

 

অনুবাদ

সুব্রত অগাস্টিন গোমেজ

কাছিম দুইয়ে উপচে পড়ে ভাঁড়,
গাছের তেঁতুল কুমিরের খাবার,
ভেদ নাই আর ঘরে-আঙিনাতে,
কানেট চোরে নিল অর্ধরাতে–
শ্বশুর ঘুমে, বধূ একা জাগে,
কানের কানেট কার কাছে সে মাগে?
দিনে বধূ কাকের ডরে কাঁপে,
রাতদুপুরে সে-ই ছোটে কামরূপে!
কুক্কুরীপার চর্যা এমনই যে
কোটির মাঝে একজন তা বোঝে।

Loading

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *