গঅণত গঅণত তইলা বাড়ী হিএঁ কুরাড়ী।
কন্ঠে নইরামণি বালি জাগন্তে উপাড়ী ॥
ছাড় ছাড় মাআ মোহা বিসমে দুন্দোলী ।
মহাসুহে বিলসন্তি সবরো লইআ সূণ মেহেলী ॥
হোরি সো মোরি তইলা বাড়ী খসমে সমতুলা ।
সুকল এ মোরে কপাসু ফুটিলা ॥
তইলা বাড়ী পাসেঁ রে জোহ্না বাড়ী তা এলা ।
ফিটেলি অন্ধারি রে আকাস ফুলিলা ॥
কঙ্গুচিনা পাকেলা রে সবরাসবরি মাতেলা ।
অণুদিণ সবরো কিম্পি ণ চেবই মহাসুহেঁ ভোলা ॥
চারিবাঁসে গরিলারে দিআঁ চঞ্চালী।
তহিঁ তোলি সবরো ডাহ কএলা কান্দই
সন্ডণ সিআলী ॥
মারিঅ ভবমত্তা রে দহ দিহে দিধলি বলী ।
হের সে সবরো নিরেবণ ভইলা ফিটিলি সবরালী॥

 

অনুবাদ

সুব্রত অগাস্টিন গোমেজ

গগনে তৃতীয় বাড়ি, হৃদয়ে কুঠার,
কণ্ঠলগ্না রমণীয়া নৈরামনি নারী–
শবর শূন্যতা-সঙ্গে সুখে আছে ভারি
ঝেড়ে ফেলে মায়া-মোহ-দ্বন্দ্ব-দুঃখ-ভার।
মহাশূন্যোপম অই বাড়িটির পাশে
ফুটেছে সুন্দর কত কার্পাসের ফুল,
এলিয়ে দিয়েছে চাঁদ জোছনার চুল,
আকাশকুসুম যেন ফুটেছে আকাশে।
খেতে খেতে পেকে ওঠে চিনা ও কাউন
শবরী শবর মাতে, ভুলে যায় সব;
চার-বাঁশের চেঁচাড়িতে শবরের শব
দাহ করা হয়–কাঁদে শিয়াল-শকুন।
দশ দিশে পিণ্ড পায় মৃত ভবমত্ত,
শবর নির্বাণ লভে, যায় শবরত্ব।

Loading

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *