তকাল হউঁ অচ্ছিলোঁ স্বমোহেঁ ।
এবেঁ মই বুঝিল সদ্ গুরু বোহেঁ ॥
এবেঁ চিঅরা অ মকুঁ ণঠা ।
গঅণ সমুদে টলিয়া পইঠা ॥
পেখমি দহদিহ সব্বহি সুন ।
চিঅ বিহুন্নে পাপ ন পুন ॥
বাজুলেঁ দিল মো লক্খ ভণিআ ।
মই আহারিল গঅণত পণিআ ॥
ভাদেঁ ভণই অভাগে লইলা ।
চিঅরাঅ মই আহারে কএলা ॥

 

অনুবাদ

সুব্রত অগাস্টিন গোমেজ

এতকাল আমি ছিলাম অন্ধ স্বমোহাবেশে,
সদ্গুরু রোগ সারিয়ে দিলেন সদুপদেশে।
এতকাল মন নিমগ্ন ছিল মনের তলে,
আকাশ যেমন ঢ’লে প’ড়ে যায় সাগরজলে।
দশ দিকে ছিল মহাশূন্যের মহা-আঁধার,
এ-মনে ছিল না পাপপুণ্যের কোনো বাধা।
বজ্র আমাকে খাওয়াল সে শেষে মোক্ষফল,
মহাতৃপ্তিতে পান করলাম আকাশজল–
ভাদে বলে, আমি ভাগ্যকে দিয়ে জলাঞ্জলি
নিজ মন খেয়ে, সুখদুঃখের ঊর্ধ্বে চলি।

Loading

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *